Support 4thPillars

×
  • আমরা
  • নজরে
  • ছবি
  • ভিডিও

  • মঙ্গলগ্রহের কম্পন চিন্তার

    শুভস্মিতা কাঞ্জী | 31-01-2021

    প্রতীকী ছবি

    মঙ্গলগ্রহ ঘুম উড়িয়েছে জ্যোতির্বি়জ্ঞানীদের কিন্তু ভাবছেন, কীভাবে তাই তো? পৃথিবীর মাটিতে যেমন ভূমিকম্প হয়, মঙ্গলগ্রহেও একই ঘটনা ঘটে তবে, ইদানিংকালে সেই ঘটনা অনেক বেড়ে গিয়েছে কিন্তু এই ঘটনা নিয়ে কেন উদ্বিগ্ন বিজ্ঞানীরা?

     

    মঙ্গলগ্রহের কম্পন যেন থামতেই চাইছে না, আর তার এই কম্পনকে জ্যোতির্বি়জ্ঞানীরা নাম দিয়েছেন মার্স কোয়েক, ঠিক যেমন আর্থকোয়েক আগেও বহুবার মঙ্গলগ্রহের মাটি কাঁপলেও তার তরঙ্গ (frequency) এত ঘন ছিল না 2019 সালে 10 এবং 11 এপ্রিল পরপর দুদিন কেঁপে উঠেছিল মঙ্গলের মাটি কিন্তু সম্প্রতি তা বহুগুন বেড়েছে নাসার ল্যান্ডার এনসাইট ল্যান্ডারের সিসমিক এক্সপেরিমেন্ট ফর ইনটিরিয়র স্ট্রাকচারে ধরা পড়েছে এই কম্পন মাত্র 200 দিনের ব্যবধানে মঙ্গল তার কক্ষপথ থেকে 4 ইঞ্চি করে সরে যাচ্ছে এই কম্পনের জন্য কিন্তু কম্পনের কারন নিয়ে এখনও সন্দিহান বিজ্ঞানীরা মঙ্গলের মাটিতে জল নেই, নেই সমুদ্র, তাহলে বায়ুমণ্ডলের জন্য যে এমনটা ঘটছে না, তা স্পষ্ট তাহলে? উত্তর খুঁজছেন বিজ্ঞানীরা

     

    কম্পনের কারে মঙ্গলগ্রহ যে তার কক্ষপথ থেকে সরে যাচ্ছে, সেই প্রক্রিয়াটিকে বলা হয় চ্যান্ডলার ওয়েবেল, কারন এই জিনিসটি 1889 সালে প্রথম লক্ষ্য করেন আমেরিকান বিজ্ঞানী সেথ চার্লো চ্যান্ডলার তাই, তাঁর নামেই প্রক্রিয়াটির নামকরন হয়েছে পৃথিবীও তার কক্ষপথ থেকে ক্রমশ সরে যাচ্ছে, কিন্তু তা অনেক ধীর গতিতে তবে মঙ্গল যে হারে সরছে তাতে সূর্যকে প্রদক্ষিন করার গতি কমতে থাকবে, এবং পাল্লা দিয়ে বাড়তে থাকবে সময় বিজ্ঞানীদের আশঙ্কা এভাবে চললে একদিন স্থির হয়ে যেতে পারে মঙ্গলগ্রহ তখন কী ঘটবে জানা নেই তবে আপাতত যে এই ঘটনা তাঁদের কপালে চিন্তার ভাঁজ ফেলেছে এবং গবেষণার একটা নতুন দিক খুলে দিয়েছে তা বলাই বাহুল্য

     

     


    শুভস্মিতা কাঞ্জী - এর অন্যান্য লেখা


    কেন ওর বাবার মৃত্যুর পরও মিথ্যা খবর দিল হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ? কেন এতদিন দেরি করল ওরা বাবার শেষকৃত্য কর

    আরব সাগরে ঘূর্ণিঝড়ের সৃষ্টি কেন তুলনামূলক ভাবে কম হয়? হলেও তা ওমান বা গুজরাটের দিকে বাঁক নেয় কেন?

    ও সব বাবুদের রোগ, তাদের হয়। বুঝলেন?

    এই 2020 সালেও সমাজের চোখে নব বিবাহিত বরের মৃত্যু মানেই কনে অপয়া রাক্ষসী

    এই শর্টফিল্মটি দর্শককে এক সুন্দর বার্তা দেবে। দিব্যা দত্তের অভিনয় নজর কাড়বে দর্শকের।

    পরীক্ষার ধরন পড়ুয়াদের ক্ষতি করছে কিনা, করলেও কতটা, তা বোঝা কেবল সময়ের অপেক্ষা।

    মঙ্গলগ্রহের কম্পন চিন্তার -4thpillars