Support 4thPillars

×
  • আমরা
  • নজরে
  • ছবি
  • ভিডিও
  • cityscope-4thpillars
    বাংলা ও বাঙালির বৌদ্ধিক চর্চার অন্যতম কেন্দ্র কলেজ স্ট্রিট কফি হাউসেও গেরুয়া বাহিনীর হামলা।  

    স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার দায়িত্ব কি শুধুই শিল্পীদের?

    করোনার স্বাস্থ্যবিধি কি এক একজনের জন্য এক এক রকম? প্রশ্ন উঠছে।  

    চিড়িয়াখানায় আজব সব চিড়িয়া

    চিড়িয়াখানায় খাঁচার ভিতরের চেয়ে বাইরে বেশি আমোদ।  

    বিলুপ্তপ্রায় শিল্প দেওয়াল লিখন

    এ দেওয়ালে বুদ্ধ, ও দেওয়ালে মমতা, ব্যঙ্গচিত্র থেকে ছড়া, হারিয়ে যাচ্ছে ভোটের আগের দেওয়াল লিখন।  

    বেনামী লাল পোস্টারে ছয়লাপ বাংলা

    ‘অরাজনৈতিক’ মঞ্চের ‘রাজনৈতিক’ পোস্টারে বিজেপিকে রোখার ডাক।  

    বামজোটের ব্রিগেডে নতুনত্বের ছোঁয়া

    : ছক ভেঙে যুবদেরএগিয়ে যাওয়ার সুযোগ করে দিচ্ছে বামনেতৃত্ব।  

    আহা এমনটা যদি পাঁচ বছর ধরেই হত!

    ভোটের সময় ছাড়াও অন্যান্য সময় সরকার তৎপর হলে মানুষ বাঁচে।  

    অটোরিকশার নিউ নর্মাল: লকডাউনের ভাড়া চলছে চলবে

    দূরত্ব বিধি মানা উঠে গেলেও কলকাতার অটোরিকশায় ভাড়া আর কমল না।  

    ভার্চুয়াল পিকনিকে শীতযাপন খুদে পড়ুয়াদের

    করোনা আবহে ভার্চুয়াল পিকনিকেই ভরসা রাখছে স্কুলগুলি  

    চোর পালালেও বুদ্ধি বাড়ছে না!

    পাতাখোর হলে যেন চুরির অপরাধ আর ধর্তব্য নয়!  

    শৈশব আর কৈশোরের যোগসূত্র: মাঝেরহাট ব্রিজ

    বেহালা আর রাজ্যের দক্ষিণের অংশ আবার যুক্ত হল খাস কলকাতার সঙ্গে  

    ভাসতে ভাসতে কলকাতা

    শীতে কলকাতার নতুন ছুটি কাটানোর ঠিকানা কোভিড পরিস্থিতিতেও পর্যটকদের নিয়ে জমজমাট।  

    মহামারীতেও দিব্যি বেঁচে বাংলার ধর্মঘটের কালচার

    বেহালা থেকে মাইকের আওয়াজ দিল্লিতে শাসকের কানে পৌঁছাচ্ছে কি?  

    চন্দননগরের শিক্ষা

    কলকাতাকে গো-হারান হারিয়ে দিল চন্দননগর। সংযমে, শৃঙ্খলায়, দায়িত্ববোধে  

    নন্দন আছে সেই নন্দনেই, আবার থেকেও পুরোটা নেই

    নিউ নর্মালে সবই কেমন যেন বদলে যাচ্ছে, বদলে গেছে চেনা আড্ডা, চেনা জায়গাগুলো।  

    মুক্তির পথ খুলে দিল লোকাল ট্রেন

    কাজের সন্ধানে শহরে চলে আসা অপুরা গত সাত-আট মাসে গ্রামে ফিরতে পারেনি। লোকাল ট্রেনে আমার সঙ্গী হল তারা  

    হীরালিনী দুর্গোৎসব: অনুষ্ঠান বাতিল, মন খারাপ বোলপুরের

    করোনার কালো গ্রাসে এ বছর সবই গিয়েছে। না রয়েছে বিক্রেতাদের পসার, না হয়েছে মেলা, বাতিল হয়েছে বাউল গান  

    করোনায় শারদীয়া: পুজো আছে, উৎসব নেই সুরুলের বড় বাড়ি-ছোট বাড়িতে

    করোনাকালে মন খারাপ মেনে নিলেও শরীর খারাপ যাতে না হয় তার ত্রুটি রাখছেন না দুই বাড়ির সদস্যরা।  

    দুর্গাপুজোই শুধু হোক এবার, উৎসবটা বাদ থাক

    বাঙালির শ্রেষ্ঠ উৎসব যেন মারণ উৎসব না হয়, তার চেষ্টা পশ্চিমবঙ্গের বাসিন্দাদেরই করতে হবে।  

    সব আকালেরই শেষ আছে, আছেই আছে

    নিউ নর্মাল সময়ে মহামারী অনেক কিছু বদলে দিয়ে গেলেও বাঙালির এই চিরায়ত অভ্যাসে বদল আনতে পারেনি।  

    লকডাউনের পর প্রথম দিনের মেট্রো সফর

    স্টেশনে পুলিশের উপস্থিতি ছিল চোখে পড়ার মতো। প্রত্যেক যাত্রীর ই-পাস দেখে তবেই স্টেশনে প্রবেশের অনুমত  

    চলমান সংসার আজ ছত্রভঙ্গ

    বিশ্বে ট্রেন নিয়ে অনেক গল্পগাথা আছে। কত গল্প প্রাণ পেয়েছে ট্রেনের কামরায়।  

    করোনাকে বলি ধরো না

    ও সব বাবুদের রোগ, তাদের হয়। বুঝলেন?  

    দুঃসময়ে নতুন দিশা: গণ উদ্যোগে অ্যান্টিবডি পরীক্ষা

    করোনা অ্যান্টিবডি পরীক্ষা, তাও আবার 450 টাকায়! বিজ্ঞাপনটা সহজেই সবার নজর কেড়েছিল সোশাল মিডিয়ায়।  

    অবশেষে বুঝল মানুষ, প্রভাব লকডাউনে

    আতঙ্ক হোক বা সচেতনতা, সাধারণ মানুষ দেরিতে হলেও বিপদের ভয়াবহতা বুঝলেন।  

    ইন্টারনেট ভাল, মানুষও মন্দ নয়!

    অনলাইন আদানপ্রদানের ফলে কীভাবে খরচ এবং পরিশ্রম কমানো যায়, তা বুঝেছেন অনেকেই।  

    ন হন্যতে হন্যমানে শরীরে

    যৌনপল্লীর কেউ কেউ এখন স্থানীয় হাটে সবজি নিয়ে বসেন। কেউ আবার বুধবার করে ফুল, বেলপাতা, আমপল্লব নিয়ে।  

    এভাবে আর কতদিন! ‘লাইভ আর্টস’ কবে আনলক হবে?

    বর্তমান থেমে গিয়েছে, ভবিষ্যৎ কী?? আমরা জানি না।  

    ‘নয়া স্বাভাবিক’ শপিং মল: পা দিয়ে টিপুন লিফটের বোতাম

    শপিং মলে প্রতিদিন আসা হাজার হাজার মানুষের মধ্যে সামাজিক দূরত্ব মানা কতটা সম্ভব?  

    আনলকড শহর ২

    ফোর্থপিলার্সের ক্যামেরায় ধরা পড়ল এবং বারাসাতের ‘আনলকড’ চিত্র।  

    ধ্বংসের মাঝে করোনা ভুলেছেন মানুষ!

    হঠাৎ কোনও বিপর্যয় বড়সড় মহামারীকেও ভুলিয়ে দিতে পারে। আমপান সেটা হাতেনাতে প্রমাণ করে দিল।  

    আশ্বাস মিলছে, মিলছে না রেশন

    সরকারের কথায় অনেকেই ভরসা পেয়ে ভেবেছিলেন না খেয়ে মরতে হবে না। তবে সরকার আদৌ কথা রাখছে কি?  

    বাংলায় আমপানের তাণ্ডব

    বাংলায় বিভিন্ন প্রান্তে আমপানের তাণ্ডবের টুকরো কিছু অংশ www.4thpillars.com এ।  

    ‘এক প্যাকেট নিয়ে যান না দাদা, নিজেরা আলু মেখে খাবেন, কিচ্ছু হবে না’

    টক ফুচকা, মিষ্টি ফুচকা, দই ফুচকা, বিবেকানন্দ পার্কের ফুচকা, হেদুয়ার ফুচকা  

    বাংলা যেন ইতালি না হয়

    সোশাল ডিস্ট্যানসিং বজায় রাখা তো দূরের কথা, বাজারের থলে হাতে রাস্তায় দাঁড়িয়েই চলছে অনর্গল গল্প।  

    ঠকাব না, এ বাজারে ভাগ্যের কাছে আমরাই তো ঠকে গেছি

    এ বাজারে ভাগ্যের কাছে আমরাই তো ঠকে গেছি  

    অবরোধের অন্তরালে কুকুর ডাকলে চমকে উঠছে পাড়া

    ‘সবসময় মনে হচ্ছে আমরা বাঁচব তো শেষ অবধি?'  

    ‘সন্তানকে তো আর অভুক্ত রাখতে পারি না’

    প্রয়োজন না থাকলেও একটু বেশিই মাছ কিনে ফেললাম। বাবা হিসাবে আর এক সন্তানের জন্য এটুকু তো করা যেতেই পার  

    শুধু পেট নয়, লকডাউনে মন ভরানোর উদ্যোগ

    কিন্তু পাড়ায় অবসরের কাজের খোঁজার এই স্মৃতি রয়ে যাবে।  

    করোনার দশা বাজার কলকাতার

    এই মুহূর্তে কলকাতা আর শহরতলির চেহারাটা কেমন?  

    একলা আবার পয়লা হবে

    মুছে যাবে গ্লানি, ঘুচে যাবে জরা  

    করোনায় দিনযাপন পর্ব ৬

    কলকাতার নানা প্রান্তে ছড়িয়ে থাকা সাংবাদিকদের চোখে কেমন লকডাউন চিত্র, আজ দেখুন ষষ্ঠ পর্ব।  

    সোশাল মিডিয়া আঁকড়ে বেঁচে আছে সভ্যতা

    সোশাল মিডিয়াকেই অস্ত্র বানিয়ে নেমে পড়েছেন মানুষের পাশে দাঁড়াতে  

    করোনায় দিনযাপন পর্ব ৫

    কলকাতার নানা প্রান্তে ছড়িয়ে থাকা সাংবাদিকদের চোখে কেমন লকডাউন চিত্র, আজ দেখুন পঞ্চম পর্ব।  

    মনে হল, একটা খারাপ সিনেমা দেখলাম

    5 এপ্রিল, রাত ন’টা থেকে প্রায় দশটা পর্যন্ত, কিছু দৃশ্য আমাদের দেখানো হয়েছে; একটা খারাপ সিনেমা।  

    নতুন করে মানুষ চিনলাম

    বিপদের সম্মুখে অসহায় মানুষের আপাত দুর্বল জায়গাগুলো এইভাবেই বুঝি বেআব্রু হয়ে পড়ে।  

    কারও উল্লাস, কারও তীব্র ব্যঙ্গ

    সোশাল মিডিয়া জুড়ে যুবসমাজের এক বিশাল অংশকে এই ‘করোনা উৎসব'কে ব্যঙ্গ করতে দেখলাম।  

    করোনায় দিনযাপন পর্ব ৪

    কলকাতার নানা প্রান্তে ছড়িয়ে থাকা সাংবাদিকদের চোখে কেমন লকডাউন চিত্র, আজ দেখুন চতুর্থ পর্ব।  

    করোনায় দিনযাপন পর্ব ৩

    কলকাতার নানা প্রান্তে ছড়িয়ে থাকা সাংবাদিকদের চোখে কেমন লকডাউন চিত্র, আজ দেখুন তৃতীয় পর্ব।  

    করোনায় দিনযাপন পর্ব ২

    কলকাতার নানা প্রান্তে ছড়িয়ে থাকা সাংবাদিকদের চোখে কেমন লকডাউন চিত্র, আজ দেখুন দ্বিতীয় পর্ব।  

    করোনায় দিনযাপন পর্ব ১

    কলকাতার নানা প্রান্তে ছড়িয়ে থাকা সাংবাদিকদের চোখে কেমন সেই লকডাউন চিত্র, আসুন দেখে নেওয়া যাক।  

    লকডাউনে অন গল্পের বই

    প্রায় সারাদিনটাই গল্পের বই পড়াতেই আটকে আছি!  

    করোনা মানুষকে কাছেও আনছে

    একটা রোগ কীভাবে মানুষকে এক করে দিচ্ছে, অপরের জন্য ভাবতে শেখাচ্ছে সেটাও শেখার।  

    দেরিতে হলেও স্বাগত

    বন্‌ধ হরতালময় শহরে এমন দিনগুলোয় সচরাচর ছেলেরা পথে ক্রিকেট খেলে, স্থানীয় চায়ের ঠেকে আড্ডা জমে।  

    বাজারে উধাও সচেতনতা

    বাজারে চাল, আলু, মুড়ি একেবারেই নেই। আর নেই যেটা সচেতনতা।  

    ‘শাট’কাহন – করোনায় দিনযাপন

    একটানা এতদিন ঘরে কাটাইনি বহুদিন। তবু বাড়িতে থাকবো, আপনারাও তাই করুন।  

    এ এক অন্য বসন্ত

    পলাশ-রাঙা বসন্তে একটু অন্যরকম রঙ খেলা শহর কলকাতায়।  

    গানে-কবিতায় কোরাসের প্রতিবাদ

    দেশের শাসকের বিরুদ্ধে সোচ্চার নাগরিক সমাজ। প্রতিবাদে সামিল কলকাতার শিল্পীরা।  

    মির্জা গালিব স্ট্রীটের হারানো সুর

    নিউ মার্কেট সংলগ্ন মির্জা গালিব স্ট্রীটের ভাইব্রেশন একসময়ে সত্যিই শহরে কাঁপুনি ধরাতো।  

    মেরে দমানো যাবে না, পাল্টা যাদবপুরের

    ৫ জানুয়ারি রবিবার সন্ধ্যায় জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয়ে মুখ ঢাকা গুন্ডাদের আক্রমণের পর এ ভাষায় গর্জে  

    একটা পাড়ার লাইব্রেরি কেমন হওয়া উচিত?

    কীভাবে ফিরবে গ্রন্থাগারের হাল?